বাগেরহাটে রমরমা তালশাসের বাজার।ক্রেতাদের উপচে পড়া ভীড় অস্থায়ী দোকান গুলোতে

Breaking News জেলা সংবাদ সকল সংবাদ সংবাদ
Share on Social Media
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

MBTV24.com: বাগেরহাটে প্রচন্ড গরমে বেড়েই চলছে তালের শাঁসের চাহিদা। হাটে বাজারে ফুটপাতে বসছে তাল শাসের অনেক অস্থায়ী দোকান।যেখানে ক্রেতাদের ভীড় চোখে পড়ার মতো।ক্রেতারা লাইনে দাঁড়িয়ে শাস কিনছেন,বিক্রেতারা ক্রেতাদেরকে সামলাতে হিমশিম খাচ্ছেন।

নারী, শিশু, যুবক সহ সকল বয়সী লোকের মধ্যে এই তালের শাঁসের কদর দিন – দিন বেড়েই চলছে। তালের নরম অংশটি খুবই সুস্বাদু স্থানীয় ভাষায় এটি “তালকুশ বা তালকুর” নামে পরিচিত। প্রচুর গরমে তালের  শাঁস শহর ও গ্রামের মানুষের কাছে খুবই জনপ্রিয়। বাগেরহাট জেলার বিভিন্ন এলাকার তাল শাঁস  স্থানীয় চাহিদা পুরন করে যাচ্ছে রাজধানী ঢাকা’সহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে।যদিও বাজারে এখন হরেক রকমের সুস্বাদু ফল উঠতে শুরু করেছে।যেমন- আম, জাম কাঁঠাল, লিচু, পেয়ারা ইত্যাদি। সম্প্রতি এর সাথে যোগ হয়েছে রসালো ফল তালের শাঁস।

এই বিষয়ে তাল শাঁস বিক্রেতা সুজন মন্ডল এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বাগেরহাট জেলার প্রতিটি গ্রামেই কম বেশি তাল গাছ রয়েছে। বর্তমানে শহর থেকে শুরু করে গ্রামের বিভিন্ন অলিতে গলিতে এই মৌসুমি ফল তালের শাঁস বিক্রি বেড়ে গেছে। অনেক মৌসুমি ফল ব্যবসায়ীরা তাল গাছ থেকে অপরিপক্ব তাল পাইকারি দামে ক্রয় করে এনে কেটে -কেটে বিক্রয় করেন। তবে নরম অবস্থায় তাল শাঁসের দাম অনেক বেশি। কিন্তু দিন যতই যেতে থাকে এবং এক সময় তাল পরিপক্ব হয়ে গেল তখন আর এই শাঁস খাওয়া সম্ভব হয় না। তালের শাঁস অতি পুষ্টিকর ও ঔষুধিগুণ সমৃদ্ধ। সব ধরনের ফলে দেহের জন্য উপযোগী বিভিন্ন প্রকার ভিটামিন ও মিনারেলস সমৃদ্ধ হলেও তালের বহির্ভূত কিছু গুরুত্বপূর্ণ উপাদন রয়েছে। অন্য ফলের তুলনায় এ ফলে ক্যালসিয়াম, লৌহ, আঁশ ও ক্যালোরির উপস্থিতি অনেক বেশি। বয়স্কদের জন্য এ ফলের উৎস থেকে সহজেই হজমযোগ্য পর্যাপ্ত আঁশ প্রাপ্তিতে অতি গুরুত্ব বহন করে। আখের গুড়ের চেয়ে তালের গুড়ে প্রোটিন, ফ্যাট ও মিনারেলসের উপস্থিতি বেশি।

অতনু চৌধুরী (রাজু)

MBTV24

মোংলা, বাগেরহাট।

তারিখঃ ০২/০৬/২০২১ইং।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *